ছবি ভিডিও

বাংলাদেশ শনিবার 20, January 2018 - ৭, মাঘ, ১৪২৪ বাংলা

Software Industry Management

সৃষ্টির সেবায় মহান আল্লাহর সন্তুষ্টি

প্রকাশিত ৩১ জুলাই, ২০১৬ ১৭:০০:৩৩

আলআমিন আশরাফি
ইসলাম শুধু একটি ধর্মেরই নাম নয়; জীবনের পরিধি যেমন ব্যাপক, তেমনি ইসলাম ধর্মের শাখা-প্রশাখাও ব্যাপক ও বিস্তৃত। বহু শাখাবিশিষ্ট কোনো জিনিসের যেকোনো একটি শাখা নিয়েই ব্যস্ত থাকলে যেমন সেটা পূর্ণ হয় না, তেমনি ইসলাম ধর্মের কোনো একটি শাখা নিয়েই ব্যস্ত থাকলে এতে পরিপূর্ণতা আসবে না। বরং সামর্থ্য অনুযায়ী সব কয়টি শাখায়ই অংশ নিতে হবে। হজরত আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত, নবী করিম (সা.) ইরশাদ করেছেন, ‘ইমানের ৭২টি শাখা রয়েছে। এগুলোর মধ্যে একটি হলো রাস্তা থেকে কোনো কষ্টদায়ক বস্তু সরিয়ে দেওয়া।’ (মুসলিম শরিফ)

এককথায় যাকে বলা যায় মানবসেবা। এই হাদিস থেকে বোঝা যায়, মানবসেবাও ইসলাম ধর্মের একটি শাখা। পৃথিবীর প্রায় সব মানুষই কোনো না কোনোভাবে মানবসেবায় জড়িত। তবে হ্যাঁ, সবার জড়ানোটা একপর্যায়ের না। কারোটা ব্যক্তিকেন্দ্রিক, কারোটা সমাজকেন্দ্রিক আর কারোটা দেশকেন্দ্রিক। অমানবের চেয়ে মানব শ্রেষ্ঠ কেন? প্রাণের কারণে? বুদ্ধির কারণে? মোটেও না। প্রাণের বৈশিষ্ট্যে মানুষ ও জীবজন্তু প্রায় অভিন্ন। মানুষ বুদ্ধিমান জীব বলে অন্য সব জীবজন্তু একেবারে বুদ্ধিহীন নয়; বরং বুদ্ধির সঙ্গে বিবেক ও নিজ চাহিদার সঙ্গে মানবিকতার সংমিশ্রণেই অন্য সব জীবজন্তুর ওপর মানুষের শ্রেষ্ঠত্ব। তাই ইসলাম মানবসমাজে বৈষম্য ও প্রভেদের কোনো সুযোগ রাখেনি। ইসলাম মানুষকে সর্বোচ্চ মানবিকতা, পরহিতৈষণা, সহমর্মিতা ও মহানুভবতার শিক্ষা দিয়েছে।

আল্লাহ তাআলা মানবজাতিকে ধনী ও গরিব দুটি শ্রেণিতে বিভক্ত করেছেন। কিছু মানুষকে বিশেষ দয়ায় বহু নিয়ামত দিয়েছেন আর কিছু মানুষকে বিশেষ হিকমতের কারণে সম্পদ থেকে বঞ্চিত করেছেন, যারা স্বভাবতই ধনীর সম্পদের মুখাপেক্ষী। ধনী ও গরিবের এ ব্যবধান কারো প্রতি জুলুম নয়। আল্লাহ তাআলা ইচ্ছা করলে সবাইকে সমান করতে পারতেন; কিন্তু তা করেননি। কারণ এ ব্যবধান পৃথিবীর ভারসাম্যের জন্য অপরিহার্য। নিজের যোগ্যতা আর বুদ্ধির বলে আসলে কেউ সম্পদশালী হতে পারে না। বুদ্ধি আর যোগ্যতাই যদি সম্পদশালী হওয়ার মাপকাঠি হতো, তাহলে সব বুদ্ধিমানই সম্পদশালী হয়ে যেত। বাস্তবে দেখা যায়, অনেক বুদ্ধিমান শিক্ষিত মানুষ অভাবগ্রস্ত ও দরিদ্র হয়ে আছে। আবার অনেক অশিক্ষিত, হাবাগোবা ধরনের মানুষ বহু সম্পদের অধিকারী হয়ে বসে আছে। সম্পদের এই বণ্টনব্যবস্থা মূলত আল্লাহ কর্তৃক বিশেষ উদ্দেশ্যে হয়ে থাকে। আল্লাহপাক মূলত মানুষকে পরীক্ষা করার জন্যই ধনী-গরিবের এই ব্যবধান সৃষ্টি করেছেন। ধনী তার ধন পেয়ে মহান আল্লাহকে ভুলে যায় কি না? আর গরিব তার অভাবের কারণে নাফরমানিতে লিপ্ত হয় কি না? এ পরীক্ষা করাই হলো ধনী-গরিবের ব্যবধানের মূল কারণ। আমাদের করণীয় হলো, সর্বাবস্থায় মহান আল্লাহর ওপর সন্তুষ্ট থাকা। তবে সন্তুষ্ট থেকে ঘরে বসে থাকলে চলবে না; বরং নিজের সাধ্যানুযায়ী হালাল উপার্জন করাও একটি ইবাদত। মহান আল্লাহর ঘোষণা হলো, ‘যখন নামাজ শেষ হয়ে যাবে, তখন তোমরা জমিনে ছড়িয়ে পড়ো এবং অনুসন্ধান করো আল্লাহর অনুগ্রহ (রিজিক)।’ (সুরা : জুমআ, আয়াত : ১০)

মানুষ সামাজিক জীব হওয়ায় একে অপরের ওপর নির্ভরশীল। মানুষের এই নির্ভরশীলতাই মানুষকে জানিয়ে দিতে চায় যে তুমি অন্যের সেবার ওপর নির্ভরশীল। ধনী-গরিব, নারী-পুরুষ সবাইকে কারো না কারো সেবা গ্রহণ করতেই হবে। জন্মের সূচনায়ই মানুষ অন্যের সেবায় নির্ভর করে বেড়ে ওঠে। অনুরূপভাবে জীবনের শেষ বেলায় কাফন-দাফনের সময়ও মানুষ পুরোপুরি অন্যের ওপর নির্ভরশীল। মানুষের এই পারস্পরিক নির্ভরশীলতা মানুষকে একে অপরের সেবা করার শিক্ষা দিতে চায়।

সৃষ্টির প্রতি সেবা করার বিভিন্ন ধরন আছে। মানুষের এই সেবা করার মানসিকতা থাকলে অন্যের আত্মিক সেবা, শারীরিক সেবার পাশাপাশি রাজনীতি, অর্থনীতি, দর্শন, সমাজবিজ্ঞান ইত্যাদি বিষয়েই সেবক ও কল্যাণকামী হওয়া যায়। স্মরণ রাখতে হবে, কেবল মহান আল্লাহর সন্তুষ্টির উদ্দেশ্যেই সৃষ্টির সেবা করতে হবে। সেবার প্রতিদান সৃষ্টির কাছ থেকে আশা করা বোকামি। কেননা যে নিজেই সেবার মুখাপেক্ষী, সে কিভাবে সেবার প্রতিদান দেবে; বরং যিনি কারো কোনো রকম সেবার মুখাপেক্ষী নন, যাঁকে তন্দ্রা ও নিদ্রা স্পর্শ করে না, তাঁর কাছ থেকেই সেবার প্রতিদান আশা করা উচিত। মনে রাখতে হবে, সৃষ্টির সেবায় লুকিয়ে আছে স্রষ্টার সন্তুষ্টি।
 


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন


এ সম্পর্কিত খবর

হাসপাতাল থেকে থানায় নেয়া হয়েছে বদরুলকে,উত্তপ্ত সিলেট

হাসপাতাল থেকে থানায় নেয়া হয়েছে বদরুলকে,উত্তপ্ত সিলেট

সিলেটের কলেজ ছাত্রী খাদিজা আক্তার নার্গিসের উপর হামলাকারী বদরুলকে চিকিৎসা শেষে শাহ পরান থানায় নেয়া

ছাত্রলীগ নেতার হামলায় আহত ছাত্রীর অবস্থা আশঙ্কাজনক

ছাত্রলীগ নেতার হামলায় আহত ছাত্রীর অবস্থা আশঙ্কাজনক

সিলেটে ছাত্রলীগ নেতার হামলার শিকার ছাত্রীর অবস্থা আশঙ্কাজনক। গতকাল সোমবার বিকেলে সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের

দূর্গাপূজা শুরু হচ্ছে আজ থেকে

দূর্গাপূজা শুরু হচ্ছে আজ থেকে

আজ থেকে শুরু হয়েছে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় উৎসব শারদীয় দূর্গাপূজা। এরই মধ্যে উৎসবের সব


তারেকের বিরুদ্ধে পরোয়ানা

সোমবার বিএনপির বিক্ষোভ

সোমবার বিএনপির বিক্ষোভ

বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে আগামী সোমবার বিক্ষোভ কর্মসূচির

প্রতিপক্ষের হামলার উপযুক্ত জবাব দেবে পাকিস্তান

প্রতিপক্ষের হামলার উপযুক্ত জবাব দেবে পাকিস্তান

প্রতিপক্ষের হামলা মোকাবিলায় সেনাবাহিনীর প্রস্তুতিতে নিজের সন্তুষ্টি প্রকাশ করে পাকিস্তানের সেনাপ্রধান জেনারেল রাহিল শরীফ জানিয়েছেন,

প্রধানমন্ত্রী ফিরছেন আজ, বিপুল সংবর্ধনার প্রস্তুতি

প্রধানমন্ত্রী ফিরছেন আজ, বিপুল সংবর্ধনার প্রস্তুতি

প্রায় দুই সপ্তাহব্যাপী যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও কানাডা সফর শেষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ দেশে ফিরছেন।


হিযবুত নেতা মহিউদ্দিনের বিচার শুরু

হিযবুত নেতা মহিউদ্দিনের বিচার শুরু

সন্ত্রাসবিরোধী আইনের মামলায় নিষিদ্ধঘোষিত সংগঠন হিযবুত তাহরীরের প্রধান সমন্বয়ক মহিউদ্দিন আহমেদসহ ছয়জনের বিচার শুরুর আদেশ

সিলেটে গোয়েন্দা পুলিশের অভিযান; আগ্নেয়াস্ত্রসহ গ্রেফতার ১০

সিলেটে গোয়েন্দা পুলিশের অভিযান; আগ্নেয়াস্ত্রসহ গ্রেফতার ১০

সিলেট প্রতিনিধি : সিলেট মহানগর গোয়েন্দা শাখা’র পুলিশ পরিদর্শক শিবেন্দ্র চন্দ্র দাশের নেতৃত্বে সিলেটের দক্ষিণ সুরমা

৩০ বিলাসবহুল গাড়ির সন্ধানে গোয়েন্দারা

৩০ বিলাসবহুল গাড়ির সন্ধানে  গোয়েন্দারা

ঘুম হারাম হয়ে গেছে সিলেটের বিলাসবহুল গাড়ির মালিকদের। কোটি কোটি টাকা কর ফাঁকি দিয়ে দেশে



আরো সংবাদ

দূর্গাপূজা শুরু হচ্ছে আজ থেকে

দূর্গাপূজা শুরু হচ্ছে আজ থেকে

০৪ অক্টোবর, ২০১৬ ১২:০৫

জুমার দিনে কেন গোসল করবেন?

জুমার দিনে কেন গোসল করবেন?

৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০৯:৫৯



আজ থেকে শুরু হচ্ছে পবিত্র হজ্ব

আজ থেকে শুরু হচ্ছে পবিত্র হজ্ব

১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১০:৫৪









ব্রেকিং নিউজ












খাদিজার জীবন নিয়ে এখনো আশঙ্কা

খাদিজার জীবন নিয়ে এখনো আশঙ্কা

০৫ অক্টোবর, ২০১৬ ১৫:৫৪