ছবি ভিডিও

বাংলাদেশ বুধবার 14, November 2018 - ৩০, কার্তিক, ১৪২৫ বাংলা

Software Industry Management

ডিজিটা হয়ে যাচ্ছে শিশুরা

প্রকাশিত ০৮ অগাস্ট, ২০১৬ ১০:৩৯:২৭

বদলে যাচ্ছে শিশুরা  

শিশুরা এক জায়গায় থাকলে গলায়-গলায় ভাব যেমন হয়, তেমনি ঝগড়া-বিবাদও কম হয় না। বন্ধুত্ব বা সখ্যের রীতিই এটা। কিন্তু এর মধ্যে যদি নৃশংস ঘটনা ঘটে, প্রতিহিংসা চরিতার্থ করতে শিশু ধারালো অস্ত্র নিয়ে রক্তপাত ঘটায়, নিষ্পাপ আরেক শিশুকে খুন করে বসে, তখন তা অবশ্যই জটিল এক দুর্ভাবনার বিষয়। 

সম্প্রতি রাজধানী ঢাকায় শিশু খুন হওয়ার যে ঘটনাটি ঘটেছে, তা অতি ভয়ংকর। মিরপুর বেড়িবাঁধসংলগ্ন দিয়াবাড়িতে গত বুধবার রাতে চার বছরের একটি মেয়েশিশুর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। ১৪ বছরের এক শিশু তাকে ছুরি দিয়ে গলা কেটে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এর মধ্যে শিশুটি আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে বলে সংবাদমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয়েছে। খুনের পেছনে কারণ যা-ই থাকুক না কেন, কোনো শিশু যদি এমন অপরাধ ঘটিয়ে থাকে, তবে তা সেই সমাজের বড় ধরনের নৈতিক ও মানবিক মূল্যবোধের অবক্ষয়ের চিত্র তুলে ধরে। 
একটি শিশু জন্ম নেওয়ার পর থেকে বাবা-মায়ের নিবিড় সাহচর্যে, ভাইবোনের মধুর ভালোবাসায় বেড়ে ওঠে। পারিবারিক পরিমণ্ডল ও ধারেকাছের পরিবেশে সম্পন্ন হয় তার সামাজিকীকরণের গুরুত্বপূর্ণ পর্ব। এর মধ্যে যদি অস্বাভাবিক কিছু ঘটতে থাকে, শিশুর মেধামননের প্রতিকূলতা তার নিত্যসঙ্গী হয়, পরবর্তী সময়ে এই শিশুও হয়ে ওঠে অস্বাভাবিক। আতঙ্ক, অনিশ্চয়তা, নির্ভরতার অভাব শিশুর শারীরিক ও মানসিক বিকাশকে ব্যাহত করে। 
গ্রামীণ জীবনের কথাই বলি, আর নগর জীবনের কথাই ধরি, এখন গড়পড়তা বেশির ভাগ শিশুর জীবন কাটে একটা অস্থিরতার ভেতর। কারণ, তার বাবা-মা আর নিকট স্বজনেরা থাকেন অস্থিরতার মধ্যে। এই অস্থিরতার কারণ সামাজিক, অর্থনৈতিক ও পারিপার্শ্বিক। খুন হওয়া শিশু এবং যার বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ উঠেছে, সেই কিশোর সমাজের যে শ্রেণির প্রতিনিধিত্ব করছে, সেখানে এই অস্থিরতা আরও বেশি। জানা গেছে, খুন হওয়া শিশুটির বাবা বালুবাহী নৌযানের সুকানি। খুনের অভিযোগ ওঠা ওই কিশোরের বাবা স মিলের কর্মী। এমন পেশার মানুষের চাকরি আজ আছে তো কাল নেই। আজ এখানে তো কাল ওখানে। ফলে তাঁদের সংসারের চাকাও ঘোরে একই তালে। দেখা যায়, ঘরে এই চলছে ভালো খাবারের আয়োজন, আবার কোনো সময় চুলায় হাঁড়িই চড়ছে না। এ ধরনের সংসারে স্বপ্ন-সাধও অনেক ক্ষেত্রেই অপক্ব ফলের মতো দড়কচা ধরে থাকে। এই শ্রেণির বেশির ভাগ বাবা-মা সন্তানকে কিছু দূর পড়িয়ে কোনো একটা কাজ ধরিয়ে দেন, যাতে রুজিরোজগারের গতি হয়। ছেলেমেয়ে পড়াশোনা করে ভালো পাস দেবে, ভালো চাকরি করবে—এমন উচ্চাশা করেন খুব কমজনই। এসব পরিবারের ছেলেমেয়েরা যে পরিবেশে থাকে বা মেশে, সেখানে চাওয়া-পাওয়ার দৌড় সীমিত। তাদের মূল আকর্ষণ থাকে বাবা বা মায়ের মোবাইল ফোন সেটে ভিডিওগেম খেলা। ফাঁক পেলে সাইবার ক্যাফেতে গিয়েও একই খেলায় মত্ত হয়। মারামারি-কাটাকাটির প্রতিযোগিতামূলক গেমগুলো তাদের খুব প্রিয়। 
এসব পরিবারের শিশুরা খুব অল্প বয়সেই একলা চলাফেরা করতে শেখে। ফুটপাতে অনেকটা পথ হেঁটে স্কুলে যায়। দোকান থেকে বাবা-মায়ের ফরমাশমতো জিনিস কিনে আনে। কেনাকাটা করতে বাজারে যায়। দু-তিন বন্ধু মিলে ঘুরতে যায় দূরে। তারা চারপাশ দেখে। বড়দের কথা শোনে। বড়দের নানা কাণ্ড-কারখানা দেখে। এভাবে শৈশবেই তাদের কচি মন বড়দের আঙিনায় ঘুরে বেড়ায়। তাদের অপরিণত মস্তিষ্কে বড়দের নানা বিষয় ঘুরপাক খায়। এসব তারা নিজেদের মতো করে বুঝতে শেখে। বাসায় মা-বোনের সঙ্গে ‘জলসা মুভিজ’ ধাঁচের ছবিগুলো দেখতে আলগোছে বসে যায়। এখানেও রয়েছে অকালে পেকে যাওয়ার বিষয়। কীভাবে ছলচাতুরী করে উদ্দেশ্য হাসিল করা যায়, মনের ভেতর চেপে রাখা বিদ্বেষ কীভাবে মেটানো যায়, সবই দেখে তারা। এসব শিশু শান্ত ভোরে কোমল রবির উদয় দেখে না, প্রাচুর্যে ভরা সবুজের মাঝে পাখির গান শোনে না, নদীর কুলু কুলু ধ্বনি তাদের কাছে অচেনা। এসব শিশুর মা তাদের ঘুমপাড়ানি গান শোনান না। দাদি বা নানির কাছে রূপকথা শোনার সুযোগ হয় না তাদের। মানব আর দানবের তফাত বোঝার বোধশক্তি হারিয়ে ফেলছে তারা। হয়ে যাচ্ছে অন্য রকম।


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন


এ সম্পর্কিত খবর

বদরুলের দ্রুত শাস্তির দাবিতে সিলেটজুড়ে বিক্ষোভ

বদরুলের দ্রুত শাস্তির দাবিতে সিলেটজুড়ে বিক্ষোভ

কলেজছাত্রী খাদিজার ওপর হামলাকারী ছাত্রলীগ নেতা বদরুলের দ্রুত ও সর্বোচ্চ শাস্তি চায় সিলেটবাসী। এই

'স্বল্প সময়ের মধ্যেই জঙ্গিবাদ নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছে'

'স্বল্প সময়ের মধ্যেই জঙ্গিবাদ নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছে'

বাংলাদেশের মানুষ ধর্মভীরু হলেও ধর্মান্ধ নয়। এ দেশের মানুষ কখনোই জঙ্গিবাদকে সমর্থন দেয়নি। দেশের মানুষের

দৈনিক যশোর পত্রিকার প্রকাশক,সম্পাদক,বার্তা সম্পাদকের বিরুদ্ধে মিথ্যা,মামলা প্রতাহারের  দাবি 

দৈনিক যশোর পত্রিকার প্রকাশক,সম্পাদক,বার্তা সম্পাদকের বিরুদ্ধে মিথ্যা,মামলা প্রতাহারের  দাবি 

উজ্জ্বল রায়, নড়াইল জেলা প্রতিনিধি:দৈনিক যশোর পত্রিকার প্রকাশক,সম্পাদক,বার্তা সম্পাদকের বিরুদ্ধে মিথ্যা,মামলা প্রতাহার দাবিতে নড়াইল জেলা


হবিগঞ্জী বাসের চাপায় এক যুবকের মৃত্যু

হবিগঞ্জী বাসের চাপায় এক যুবকের মৃত্যু

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি: মৌলভীবাজারে হবিগঞ্জ বিরতিহীন বাসের চাপায় পড়ে নান্টু চন্দ্র শীল (৩৯) নামে এক যুবকের

বগুড়ায় দু’টি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ৭

বগুড়ায় দু’টি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ৭

ধবগুড়া প্রতিনিধি : বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলায় ঢাকা-রংপুর মহাসড়কে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে পাঁচ নারী নিহত

খাদিজার হামলাকারি বদরুল আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে

খাদিজার হামলাকারি বদরুল আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে

সলেট প্রতিনিধি: আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন সিলেটে কলেজছাত্রী খাদিজা আক্তার নার্গিসকে হত্যাচেষ্টাকারী বদরুল আলম


ভুলুন্ঠিত মানবতাকে রক্ষা করলেন ইমরান, মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন খাদিজা

ভুলুন্ঠিত মানবতাকে রক্ষা করলেন ইমরান, মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন খাদিজা

সিলেট জেলা প্রতিনিধি :: মানতার দুষমন, নিষ্ঠুর অমানুষ বদরুলের চাপাতির আঘাতে ভুলুন্ঠিত মানবতা। ধারালো চাপাতির

হাসপাতাল থেকে থানায় নেয়া হয়েছে বদরুলকে,উত্তপ্ত সিলেট

হাসপাতাল থেকে থানায় নেয়া হয়েছে বদরুলকে,উত্তপ্ত সিলেট

সিলেটের কলেজ ছাত্রী খাদিজা আক্তার নার্গিসের উপর হামলাকারী বদরুলকে চিকিৎসা শেষে শাহ পরান থানায় নেয়া

খাদিজার জীবন নিয়ে এখনো আশঙ্কা

খাদিজার জীবন নিয়ে এখনো আশঙ্কা

রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন কলেজছাত্রী খাদিজা বেগম। অস্ত্রোপচার শেষে গতকাল বিকেলে তাঁকে ৭২ ঘণ্টার নিবিড়



আরো সংবাদ









জঙ্গিবাদের তাত্ত্বিকগণ

জঙ্গিবাদের তাত্ত্বিকগণ

১১ অগাস্ট, ২০১৬ ১৭:২২

প্রাণের ঋতু বর্ষা

প্রাণের ঋতু বর্ষা

২২ জুলাই, ২০১৬ ১৭:৩১




ব্রেকিং নিউজ












খাদিজার জীবন নিয়ে এখনো আশঙ্কা

খাদিজার জীবন নিয়ে এখনো আশঙ্কা

০৫ অক্টোবর, ২০১৬ ১৫:৫৪