বাংলাদেশ বুধবার 24, April 2019 - ১১, বৈশাখ, ১৪২৬ বাংলা - হিজরী

দলীয় দাপট নয়, চাই মানবিক দৃষ্টি বল্লেন কে.আই ফেরদৌস

অনলাইন ডেস্ক: | প্রকাশিত ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৬:০৫:৩৪

সব ইসলামি দলের প্রতি রয়েছে সমর্থন ও ভালোবাসা। কারন সবাই কোরআন হাদীসের দেখানো পথে সমাজ রাষ্ট্র গঠন করতে চেষ্টা করছেন। নিয়ত দেখার মালিক আল্লাহ। সম্প্রতি ঘাতক এনা বাসের আঘাতে আটজন মাইক্রোবাস যাত্রী মর্মান্তিকভাবে নিহত হয়েছেন। সেটা খুবই কষ্টদায়ক। সারা সিলেট জুড়ে শোকের ছায়া। নিহত হয়েছেন জমিয়ত নেতা মাওলানা আবু সুফিয়ানসহ উনার পরিবারের পাচ সদস্য! বাকি তিনজন উনার প্রতিবেশী ১. মাওলানা সাইদুর রহমান ২. হাজি আব্দুল হান্নান ( এলাকার বিশিষ্ট ব্যবসায়ী) ৩. দুরুদ মিয়া ( আওয়ামীলীগ নেতা) স্বাভাবিকভাবেই একই পরিবারের পাঁচজন নিহত হওয়ায় এ পরিবারের প্রতি একটু বেশী কষ্ট অনুভব হবে। তাছাড়া রাজনৈতিক সম্পর্কের কারনে মাওলানা আবু সুফিয়ানের বাড়িতে দলীয় নেতা কর্মীরা গিয়ে সহানুভূতি জানাবেন, সাহায্য করবেন এটাই স্বাভাবিক। তবে এটা ভুলে গেলে চলবে না, সাথে আরও তিনটি মানুষ নিহত হয়েছেন। তাদের খোঁজ- খবর নেওয়াও মানবিক দায়িত্ব। অথচ শুনতে খারাপ লাগলেও ক'দিন ধরে দেখছি একমাত্র মাওলানা আবু সুফিয়ান এবং তার পরিবারের প্রতিই সহানূভুতি এবং সাহায্য সহযোগিতা করা হচ্ছে এক তরফাভাবে। ব্যাপারটা আমার কাছে ভালো লাগেনি। অথচ ইসলাম কিন্তু সাম্যতা শিক্ষা দেয়। তাছাড়া নিহত মাওলানা সাইদুর রহমানের পরিবার নিতান্তই গরীব। এতিম তিন চারটি সন্তান নিয়ে উনার বিধবা স্ত্রী একেবারে দিশাহারা! এই অসহয়ায় ফ্যামিলি কী করে জীবন চালাবে? এগুলো কি ভেবে দেখেছি আমরা? বিশ্বস্ত সূত্রে জানতে পারলাম, এপর্যন্ত সব সাহায্য সহযোগিতা গিয়েছে মাওলানা আবু সুফিয়ানের বাড়ীতে। কেনো? নিহত মাওলানা সাইদুর রহমানের পরিবার কী দোষ করলো? নিহত দুরুদ মিয়ার পরিবারে কী দোষ করলো? নিহত হাজি আব্দুল হান্নানের পরিবারে কী দোষ করলো? এরা তো সবাই একই গাড়িতে, একই উদ্দেশ্যে গিয়ে একসাথে নিহত হয়েছেন! তবে সহানুভূতি, সাহায্য কেনো শুধু একই পরিবারে যাবে? বন্ধু! আমাকে ভুল বুঝোনা। একটু চিন্তা করো ইসলাম কী বলে?


footer logo

 ঢাকা অফিস
GA-99/3  Pragati sharani
Gulshan Dhaka 1212
ই-মেইল:- info@bdnationalnews.com

.